বৃহস্পতিবার , ৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. উপ-সম্পাদকীয়
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনযাপন
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশগ্রাম
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

গ্যালারির চেয়ার তুলে পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর হামলা আফগানদের

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ৮, ২০২২ ৬:৫৬ পূর্বাহ্ণ

 

দ্বন্দ্বের শুরুটা হয়েছিল মাঠেই। পাকিস্তানি ব্যাটার আসিফ আলিকে আউট করে আফগান পেসার ফরিদ আহমেদ কিছু একটা বলেছিলেন। মেজাজ হারিয়ে আসিফ ব্যাট দিয়ে মারতে যান ফরিদকে। কোনোমতে তাদের সামলান সতীর্থরা।

উত্তেজনার সেই রেশ শুধু বাইশ গজে নয়, ছড়িয়ে পড়লো গ্যালারিতেও। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে শেষ মুহূর্তে নাটকীয় হার মেনে নিতে পারেননি আফগান সমর্থকরা। মাঠেই চেয়ার উপড়ে পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর হামলা করেন তারা।

এশিয়া কাপের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে পরিণত হয়েছিল পাকিস্তান আর আফগানিস্তানের লড়াইটি। যে ম্যাচে আফগানরা জিতলে তারা তো টিকে থাকতোই, ফাইনালে উঠার লড়াই জমে উঠতো চার দলের মধ্যেই।

এমন এক হাইভোল্টেজ ম্যাচ উত্তেজনা ছড়াবে না, তা কী হয়! উত্তেজনা ছড়ালো বৈকি! তবে এতই বেশি, যা নিয়ে এখন দুই দেশের ক্রিকেট সমর্থকদের সম্পর্ক হয়ে গেলো সাপে-নেউলে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, রশিদ খানরা ম্যাচ হারার পর স্টেডিয়ামের মধ্যেই পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর আক্রমণ করে বসেন আফগানিস্তানের সমর্থকরা।

ভিডিওতে দেখা যায়, স্টেডিয়ামের চেয়ার উপড়ে পাকিস্তানি সমর্থকদের দিকে ছুড়ে মারছেন আফগান সমর্থকরা। যা নিয়ে লেগে গেছে দুই দেশের ক্রিকেট সংশ্লিষ্টদের মধ্যেও।

পাকিস্তানের সাবেক গতিতারকা শোয়েব আখতার আফগান সমর্থকদের হামলার ভিডিওটি টুইটারে শেয়ার করে শফিক স্টানিকজাইকে ট্যাগ করে লিখেছেন, ‘আফগান ভক্তরা এটা কী করছে? এটা তারা অতীতে একাধিকবার করেছে। এটি একটি খেলা এবং এটি সঠিক মেজাজে পরিচালিত হওয়া উচিত। শফিক স্টানিকজাই আপনি যদি খেলায় এগিয়ে যেতে চান, তবে আপনার ভক্ত এবং খেলোয়াড়দের কিছু জিনিস শিখতে হবে।’’

শোয়েবের সেই টুইটে আফগান ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক প্রধান নির্বাহী শফিক স্টানিকজাই রিপ্লাই দিয়েছেন এভাবে, ‘আপনি সমর্থকদের আবেগে বাধ দিতে পারবেন না। এসব ঘটনা বিশ্ব ক্রিকেটে বহুবার ঘটেছে। আপনি বরং কবির খান, ইনজামাম ভাই এবং রশিদ লতিফকে জিজ্ঞেস করতে পারেন, আমরা তাকে কেমন চোখে দেখতাম। আমার পরামর্শ থাকবে, কোনো মন্তব্যে জাতিকে জড়িয়ে দেবেন না।’

     

    সর্বশেষ - দেশজুড়ে