শুক্রবার , ৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | ১০ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. উপ-সম্পাদকীয়
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনযাপন
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশগ্রাম
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

২৯ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করে যা জানাল র‌্যাব

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
সেপ্টেম্বর ৯, ২০২২ ২:২৩ অপরাহ্ণ

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২৯ ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। এ সময় ছিনতাইয়ে ব্যবহৃত দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব জানায়, কমলাপুর এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে এক নারীর গলা থেকে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে পালানোর সময় ধাওয়া করে আরিফ হোসেন (২৯) নামে এক ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে কমলাপুর এলাকায় স্ত্রীকে রিকশায় তুলে দিয়ে কথা বলছিলেন স্বামী মিতুল রায় রনি। রিকশা ঘোরাতেই পেছন থেকে হেঁচকা টানে রনির স্ত্রীর গলায় থাকা স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে দৌড় দেয় এক ছিনতাইকারী। ঘটনা বুঝেই ছিনতাইকারীর পিছু নেন রনি। কয়েকজন র‌্যাব সদস্যের সামনে পড়লে তারা ওই ছিনতাইকারীকে ধরে ফেলেন। পরে রনি ও তার স্ত্রীকে স্বর্ণের চেইন বুঝিয়ে দেন র‌্যাব-৩ এর সদস্যরা।

এছাড়াও রাজধানীর শাহজাহানপুর, মতিঝিল, মুগদা, পল্টন, হাতিরঝিল এবং তেজগাঁও থানাধীন এলাকায় ভিন্ন ভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে সংঘবদ্ধ অজ্ঞানপার্টি ও ছিনতাইকারী চক্রের সদস্য ইসলাম (২২), বাবু (২৭), টিটু (২০), শরিফ (২১), নুরে আলম (২২), মুরাদীল মুস্তাকিম ওরফে মুরাদ (১৯), জালাল (১৯), হৃদয় (১৮), হোসেন ওরফে মোটু (১৯), জয় (১৯), সুমন (২১), ইয়াছিন রাব্বি (২০), টিটু (৪০), পরান (২৬), রাসেল (২২), জীবন সরদার (২১), শুক্কুর (২০), সাগর হোসেন (২২), মাসুম খান (১৯), মিহির তালুকদার (২১), হোসেন (২২), ফারুক (২৮), মেহেদী হাসান রানা (২৪), সুজন (২২), জুলহাস (৩০), কবির হোসেন (২২), দেওয়ান আলী (২৫) ও তৌহিদ হাওলাদার (২২)। তাদের কাছ থেকে ১৮টি মোবাইল ফোন, ৭টি সুইচ গিয়ার, ২টি এন্টি কাটার, ৬টি ব্লেড, ১টি কাঁচি, চাকু, ক্ষুর, বিষাক্ত মলমের কৌটা, স্বর্ণের চেইন এবং নগদ ৩২৪ টাকা উদ্ধার করা হয়।

র‌্যাব-৩ এর সহকারী পুলিশ সুপার ফারজানা হক এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে- রাজধানীর বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশন এলাকায় ছিনতাইকারী সদস্যরা ঘোরাফেরা করতে থাকে। যাত্রীদের টার্গেট করে কখনো তাদেরকে দেশীয় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে, কখনো বিষাক্ত চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে খাওয়ানোর চেষ্টা করে। এভাবে সর্বস্ব কেড়ে নিয়ে তারা ভিড়ের মধ্যে মিশে যায়। এ ছাড়া কখনো ভিড়ের মধ্যে যাত্রীদের চোখে-মুখে বিষাক্ত মলম বা মরিচের গুড়া কিংবা বিষাক্ত স্প্রে করে সর্বস্ব কেড়ে নেয়। এসব ছিনতাইকারী সদস্যদের ভুক্তভোগীরা খুব কম ক্ষেত্রেই শনাক্ত করতে পারেন। ফলে ছিনতাইকারীরা নির্বিঘ্নে তাদের অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে।

র‌্যাব কর্মকর্তা ফারজানা হক বলেন, সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারীরা রাজধানীর বিভিন্ন অলিগলিতে ওতপেতে থাকে। সুযোগ পাওয়া মাত্রই তারা পথচারী, রিকশা আরোহী, যানজটে থাকা সিএনজিচালিত অটোরিকশা যাত্রীদের ধারাল অস্ত্র দেখিয়ে সর্বস্ব লুটে নেয়। সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত তুলনামূলক জনশূন্য রাস্তা, লঞ্চঘাট, বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশন এলাকায় ছিনতাইকারীরা বেপরোয়া হয়ে ওঠে। তাদের ছিনতাই কাজে বাধা দিলে তারা নিরীহ পথচারীদের প্রাণঘাতী আঘাত করতে দ্বিধাবোধ করে না।

র‌্যাব জানায়- খিলগাঁও, মালিবাগ রেলগেট, দৈনিক বাংলা মোড়, পীরজঙ্গি মাজার ক্রসিং, কমলাপুর বটতলা, মতিঝিল কালবার্ট রোড, নাসিরের টেক হাতিরঝিল, শাহবাগ, গুলবাগ, রাজউক ক্রসিং, ইউবিএল ক্রসিং পল্টন মোড়, গোলাপ শাহর মাজার ক্রসিং, হাইকোর্ট ক্রসিং, আব্দুল গণি রোড, মানিকনগর স্টেডিয়ামের সামনে, নন্দীপাড়া ব্রিজ, বাসাবো ক্রসিং এলাকায় সন্ধ্যা থেকে ভোর রাত পর্যন্ত ছিনতাইকারীদের তৎপরতা বেশি থাকে। এসব ছিনতাইকারীদের আইনের আওতায় আনার ফলে পথচারীদের মাঝে স্বস্তি বিরাজ করছে।

 

facebook sharing button

সর্বশেষ - দেশজুড়ে

আপনার জন্য নির্বাচিত