শুক্রবার , ১৪ অক্টোবর ২০২২ | ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. উপ-সম্পাদকীয়
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনযাপন
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশগ্রাম
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

উত্তরের ঘন কুয়াশা জানান দিচ্ছে শীতের আগমনী বার্তা

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ১৪, ২০২২ ৪:১০ পূর্বাহ্ণ

শরৎ শেষে আসছে হেমন্ত। এরপরই আসবে শীত। কিন্তু এরইমধ্যে দেশের উত্তরাঞ্চলে শীতের আগমনী বার্তা দিচ্ছে। শুক্রবার (১৪ অক্টোবর) ভোর থেকে ঘন কুয়াশার চাদরে ঢাকা পড়েছে উত্তরের জেলা দিনাজপুর। ফলে সড়কে হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে যানবাহন।

কিছুটা অবাক হলেও শীতের আগাম বার্তায় উচ্ছ্বসিত ফজরের নামাজে আসা মুসুল্লি, কাজে ও প্রাতর্ভ্রমণে বের হওয়া মানুষগুলো।

উপশহর মিস্ত্রী পাড়া মহল্লার বাসিন্দা বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের (বিআরডিপি) অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আইনুল হক বলেন, ‘আজ আশ্বিন মাসের ২৯ তারিখ। এ মাসের শেষে এমন ঘন কুয়াশা গত কয়েক বছর দেখেনি দিনাজপুর বাসী। হাঁটতে খুব ভালো লাগছে, আজকের দিনে কুয়াশা জানান দিচ্ছে যে শীত এসে গেছে।’

jagonews24

সদর উপজেলার খোদমাধবপুর মিস্ত্রিপাড়া জামে মসজিদে নামাজ পড়তে আসা মুসুল্লি আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আশ্বিন মাসের শেষে ঘন কুয়াশা পড়ে গেছে। শীতের প্রভাব হয়তো আসছে। একদিকে বৃষ্টি, আরেক দিকে গরম ও কুয়াশা। সব মিলিয়েই আমাদের এ বাংলাদেশ।’

বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশনের (বিএডিসি) অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম বলেন, ‘শীত আসার আগেই এবার আশ্বিন মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে হালকা কুয়াশা পড়তে শুরু করেছে। তবে আজকে যে ঘন কুয়াশা পড়েছে তা ব্যাপক। যা এ সময়ে কল্পনাই করা যায় না।’

ইজিবাইক চালক তসলিম বলেন, ‘কুয়াশা মানেই শীত আসার নমুনা। আমাদের কাছে আজকের কুয়াশা ভালোই লাগছে। তবে এ সময়ে এমন ঘন কুয়াশা পড়তে আগে দেখিনি।’

ভোরে হাঁটতে বের হওয়া জাকির হোসেন বলেন, ‘অক্টোবর মাসে প্রাকৃতিক নিয়মেই কিছুটা কুয়াশা পড়ার কথা। তবে আজকে কুয়াশা যেন একটু বেশিই পড়েছে। একটু দূরের কিছু দেখা যাচ্ছে না।’

jagonews24

সদর উপজেলার মহাসড়কের পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা রুম্মান বলেন, ‘আশ্বিন মাসের ২৯ তারিখ। এখন গরমের তীব্রতা নেই। আবার শীত অনুভূত না হলেও আজ কুয়াশা পড়েছে। ঋতু পরিবর্তনের একটা পূর্বাভাস লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কে যানবাহন হেডলাইট জ্বালিয়ে চলছে।’

শহরের বালুবাড়ী এলাকার আবুল কাশেম বলেন, ‘দিনে রাতে হালকা গরম হলেও ভোরে কুয়াশায় কিছুটা শীতের আমেজ পাওয়া যাচ্ছে। শীত আসছে এটা বোঝা যাচ্ছে। ভোরে ফজরের নামাজ পড়তে উঠে দেখি প্রচণ্ড কুয়াশা পড়েছে। মনে হচ্ছে শীত এসে গেছে।’

এদিকে ঘন কুয়াশার আবির্ভাবকে স্বাভাবিক মনে করছেন আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্মকর্তারাও। দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, কয়েকদিনের সামান্য বৃষ্টির কারণে আজ শুক্রবার ভোর থেকে ঘন কুয়াশা পড়েছিল। এ সময় এমন কুয়াশা স্বাভাবিক বিষয়। তবে দিনাজপুরের তাপমাত্রা ২৩ থেকে ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠানামা করছে।

সর্বশেষ - দেশজুড়ে