সোমবার , ১৮ জুলাই ২০২২ | ২৩শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. উপ-সম্পাদকীয়
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনযাপন
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশগ্রাম
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগে বাবা হওয়ার সঠিক বয়স নিয়ে। এই বয়স নিয়ে আমাদের দেশে বিভিন্ন প্রচলিত ধারণা রয়েছে। এবার জেনে নিন বাবা হওয়ার সঠিক বয়স কত?

জুলাই ১৮, ২০২২ ৫:০৪ অপরাহ্ণ

  • সম্প্রতি ব্রিটিশ বিজ্ঞানীদের করা এক নতুন গবেষণা থেকে দেখা গিয়েছে চল্লিশোর্ধ দাতাদের শুক্রাণু থেকে সন্তান উৎপাদনের সম্ভাবনা অনেক বেশি হয়। অর্থাৎ শুক্রাণুদাতা যদি মধ্যবয়সী পুরুষ হন সেক্ষেত্রে নারীদের গর্ভধারণের সম্ভাবনা বেশি থাকে। ছবি: সংগৃহীত

  • অর্থাৎ ‘বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমে যায় সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা’ বহুল প্রচলিত এই ধারণা ভুল প্রমাণিত করল এই গবেষণা। বরং এই নতুন গবেষণার ফলে বেরিয়ে এলো ঠিক বিপরীত তত্ত¡। ছবি: সংগৃহীত

    অর্থাৎ ‘বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমে যায় সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা’ বহুল প্রচলিত এই ধারণা ভুল প্রমাণিত করল এই গবেষণা। বরং এই নতুন গবেষণার ফলে বেরিয়ে এলো ঠিক বিপরীত তত্ত¡। ছবি: সংগৃহীত

  • মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন গাইডলাইনে বলা হয়েছিল শুক্রাণুদাতার বয়স হতে হবে চল্লিশের নিচে। কিন্তু সমীক্ষা বলছে চল্লিশোর্ধ দাতারাই বেশি সক্ষম। ১৯৯১ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত মোট ৪০ হাজার ৪০০টি ইউভিএফ চিকিৎসা পদ্ধতির উপর সমীক্ষা চালানো হয়েছিল। ছবি: সংগৃহীত

    মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন গাইডলাইনে বলা হয়েছিল শুক্রাণুদাতার বয়স হতে হবে চল্লিশের নিচে। কিন্তু সমীক্ষা বলছে চল্লিশোর্ধ দাতারাই বেশি সক্ষম। ১৯৯১ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত মোট ৪০ হাজার ৪০০টি ইউভিএফ চিকিৎসা পদ্ধতির উপর সমীক্ষা চালানো হয়েছিল। ছবি: সংগৃহীত

  • দেখা গিয়েছে ২০ বছরের নিচে শুক্রাণুদাতাদের থেকে ইউভিএফ পদ্ধতিতে গর্ভধারণ যেখানে সম্ভব হয়েছে ২৮.৩ শতাংশ, সেখানে ৪১ থেকে ৪৫ বছর বয়স্ক দাতাদের শুক্রাণু থেকে ইউভিএফ পদ্ধতিতে গর্ভধারণ সফল হয়েছে ৩০.৪ শতাংশ ক্ষেত্রে। ছবি: সংগৃহীত

    দেখা গিয়েছে ২০ বছরের নিচে শুক্রাণুদাতাদের থেকে ইউভিএফ পদ্ধতিতে গর্ভধারণ যেখানে সম্ভব হয়েছে ২৮.৩ শতাংশ, সেখানে ৪১ থেকে ৪৫ বছর বয়স্ক দাতাদের শুক্রাণু থেকে ইউভিএফ পদ্ধতিতে গর্ভধারণ সফল হয়েছে ৩০.৪ শতাংশ ক্ষেত্রে। ছবি: সংগৃহীত

  • বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, ‘বয়সের সঙ্গে শুক্রাণুর ক্ষমতা কমার কোনো সম্পর্ক নেই। এটা নির্ভর করে শুক্রাণুর মানের ওপর।’ গবেষণা অনুসারে বাবা হওয়ার সেরা বয়স তবে কোনটি? প্রায়ই মনে করা হয় যে সন্তান হওয়ার ক্ষেত্রে পুরুষদের বয়স কোনো বিষয়ই নয় এবং জৈবিক ঘড়ি (বায়োলজিকাল ক্লক) শুধুমাত্র সন্তান জন্মদানকারী মায়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ছবি: সংগৃহীত

    বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মতে, ‘বয়সের সঙ্গে শুক্রাণুর ক্ষমতা কমার কোনো সম্পর্ক নেই। এটা নির্ভর করে শুক্রাণুর মানের ওপর।’ গবেষণা অনুসারে বাবা হওয়ার সেরা বয়স তবে কোনটি? প্রায়ই মনে করা হয় যে সন্তান হওয়ার ক্ষেত্রে পুরুষদের বয়স কোনো বিষয়ই নয় এবং জৈবিক ঘড়ি (বায়োলজিকাল ক্লক) শুধুমাত্র সন্তান জন্মদানকারী মায়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ছবি: সংগৃহীত

  • কিন্তু চিকিৎসকদের একাংশের মতামত হলো, পুরুষের বয়সের সঙ্গে সঙ্গে শুক্রাণুর সংখ্যা এবং গুণমান হ্রাস পেতে থাকে। তাই জৈবিক দৃষ্টিকোণ থেকে, বিশেষজ্ঞরা সুপারিশ করেন যে একজন পুরুষ তার ২০ এর কোঠার শেষ থেকে ৩০ এর কোঠার শুরুর দিকে পিতৃত্বের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত। যদিও নতুন গবেষণায় দাবি করা হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ বছরে পুরুষদের শুক্রাণুর ক্ষমতা সবথেকে বেশি থাকে। ছবি: সংগৃহীত

    কিন্তু চিকিৎসকদের একাংশের মতামত হলো, পুরুষের বয়সের সঙ্গে সঙ্গে শুক্রাণুর সংখ্যা এবং গুণমান হ্রাস পেতে থাকে। তাই জৈবিক দৃষ্টিকোণ থেকে, বিশেষজ্ঞরা সুপারিশ করেন যে একজন পুরুষ তার ২০ এর কোঠার শেষ থেকে ৩০ এর কোঠার শুরুর দিকে পিতৃত্বের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত। যদিও নতুন গবেষণায় দাবি করা হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ বছরে পুরুষদের শুক্রাণুর ক্ষমতা সবথেকে বেশি থাকে। ছবি: সংগৃহীত

  • যদিও পুরুষদের পক্ষে এখনো তাদের ৫০ এবং তার বেশি বয়সে সন্তানের পিতা হওয়া সম্ভব। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস অনুসারে, সন্তানের পিতা হওয়ার জন্য সবচেয়ে বয়স্ক পুরুষের বয়স ছিল ৯২ বছর। তবুও গবেষকরা খুঁজে পেয়েছেন যে একজন পুরুষের বয়স একজন দম্পতির গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনাকে প্রভাবিত করতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

    যদিও পুরুষদের পক্ষে এখনো তাদের ৫০ এবং তার বেশি বয়সে সন্তানের পিতা হওয়া সম্ভব। গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস অনুসারে, সন্তানের পিতা হওয়ার জন্য সবচেয়ে বয়স্ক পুরুষের বয়স ছিল ৯২ বছর। তবুও গবেষকরা খুঁজে পেয়েছেন যে একজন পুরুষের বয়স একজন দম্পতির গর্ভবতী হওয়ার সম্ভাবনাকে প্রভাবিত করতে পারে। ছবি: সংগৃহীত

আরও