মঙ্গলবার , ২৬ জুলাই ২০২২ | ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. উপ-সম্পাদকীয়
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. চাকরি
  9. জাতীয়
  10. জীবনযাপন
  11. তথ্যপ্রযুক্তি
  12. দেশগ্রাম
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

ক্ষমা চাইলেন পোপ ফ্রান্সিস

প্রতিবেদক
নিউজ ডেস্ক
জুলাই ২৬, ২০২২ ১:৫৮ অপরাহ্ণ

কানাডায় ক্যাথলিক চার্চ পরিচালিত আবাসিক স্কুলে আদিবাসী শিশুদের হত্যার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। কানাডার পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ আলবার্টার মাস্কওয়াসিসে এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চান তিনি।

শিশু হত্যার জন্য ক্ষমা চাইতেই কানাডা সফরে গেছেন বলে জানান ক্যাথলিক খ্রিষ্টানদের প্রধান এই ধর্মগুরু। ১৮৩১ থেকে ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত লাখ লাখ আদিবাসী শিশুকে কথিত পশ্চিমা সভ্যতা শেখানোর নাম করে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করে আবাসিক স্কুলে পাঠানো হয়।

তৎকালীন ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক সরকারের অর্থায়নে এসব স্কুল ক্যাথলিক চার্চ দ্বারা পরিচালিত হতো। প্রায় দুইশ বছর আগের এসব স্কুলে আদিবাসী শিশুদের জোর করে তাদের পরিবার থেকে আলাদা করা হতো। এরপর তাদের ওপর চালানো হতো শারীরিক ও যৌন নিপীড়ন।

সেখানে অনেক শিশু অপুষ্টিতে ভুগে মৃত্যুবরণ করেছে। কানাডার ট্রুথ অ্যান্ড রিকনসিলিয়েশন কমিশনের ২০১৫ সালে প্রতিবেদনে এ ঘটনাকে সাংস্কৃতিক গণহত্যা হিসেবে অভিহিত করা হয়েছে।

কানাডায় একের পর এক আদিবাসী শিশুদের গণকবর খুঁজে পাওয়ার পর ব্রিটিশ ঔপনিবেশের বিরুদ্ধে কানাডাতেও ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। এর আগে কানাডার বিক্ষুব্ধ জনতা উইনিপেগ শহরে স্থাপিত রানি ভিক্টোরিয়া ও রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের ভাস্কর্য উপড়ে ফেলে।

ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে কানাডার রানি অর্থাৎ রাষ্ট্রপ্রধান। এর আগে রানি ভিক্টোরিয়াও কানাডা শাসন করেছেন।

 

     

    সর্বশেষ - দেশজুড়ে